Overblog Follow this blog
Edit post Administration Create my blog
March 24 2011 5 24 /03 /March /2011 16:36

আদর্শ শিক্ষক:
শিক্ষক ক্লাশরুমে ঢুকে জিজ্ঞেস করলেনআমি কি পড়াব তা কি তোমরা জান ?
ছাত্ররা মুখ চাওয়া চাওয়ি করে বললনা স্যার
শিক্ষক বললেনকি পড়াব সেটাই তখন জান না তখন পড়াব কিভাবে ?
বলে চলে গেলেন
পরদিন আবার ক্লাশে এসেই জিজ্ঞেস করলেনআমি কি পড়াব তা জান ?
এবার ছাত্ররা বললজানি স্যার
তিনি বললেনজানই যখন তখন আর পড়ানোর কি আছে ?
বলে চলে গেলেন
পরদিন ক্লাশে ঢুকে সেই প্রশ্নই করলেনআমি কি পড়াব তা কি জান ?
কজন বললজানি স্যার। কজন বললজানি না স্যার
তিনি বললেনযারা জানো না তারা যারা জানে তাদের কাছে জেনে নাও
আগের অভ্যেস:
ঘড়ির কাটা তো একঘন্টা এগিয়ে আনা হয়েছে। কিভাবে মানিয়ে নিলেন ?
সরকারী চাকরী করি সরকারের কথা না শুনলে কি চলে নতুন নিয়মে ঘড়ি দেইখাঅফিস শেষ করি। তয় অফিসে যাই আগের অভ্যাসে 
ছাতা:
সেদিন হঠাৎ করে বৃষ্টি আশায় যে ছাতাটা ধার দিয়েছিলাম সেটা ফেরত নিতে এলাম
কিন্তু ভাই ছাতাটা আমি এইমাত্র রুমিকে ধার দিলাম। সে তার এক ভাইকে ওটা দিয়ে বাজারে পাঠিয়েছে
সমস্যা হয়ে গেল যে। ছাতাটা আসলে অফিসের কামালের কাছে ধার করে এনেছিলামসেটা আসলে তার এক আত্মিয়ের 
ফার্মগেট ব্রিজ:
দলিলে লিখুন ফার্মগেট ব্রিজটা জামাইকে দিয়ে মরতে চাই
কিন্তু এটার মালিক তো আপনি নন
তাতে কি হয়েছে। ওটা দান করতে সমস্যা কোথায় ?
নামানে . . . ওটা দান করা-
তবে কি ওটা সাথে নিয়ে যাব ?
। ভাল হোচছে না.:
এক যায়গায় বসে সময় কাটাচ্ছিলেন এক ভদ্রলোক। কিছুক্ষন পর এক যুবক এসে বসলটেবিলে হাত দিয়ে তবলা বাজাতে শুরু করল। ভদ্রলোক বিরক্তিভরে তাকালেন কিন্তু কাজ হল না। বাজনা ক্রমেই বেড়ে চলল। একসময় বাধ্য হয়ে মুখ খুলতে হল তাকেভাল হচ্ছে না কিন্তু
তবলার জোর আরো বেড়ে গেল। ভদ্রলোক আরো বিরক্ত হলেন। গলা আরেকটু বাড়িয়েবললেনভাল হচ্ছে না কিন্তু
তাতেও কাজ হল না। তবলা চলতেই থাকল। তিনি রীতিমত রেগে গিয়ে ধমক দিলেন,ভাল হচ্ছেনা কিন্তু
সে বললএরচেয়ে ভাল পারি না

 নারীবিদ্বেষী এক যুবক ঈশ্বরকে জিজ্ঞেস করলহে ঈশ্বরতুমি নারীকে এত সুন্দরী বানিয়েছ কেন?

যাতে তুমি তাকে ভালোবাস
তাহলে ঈশ্বরতুমি নারীকে এত বোকা বানিয়েছ কেন?
যাতে সে তোমাকে ভালোবাসে

এক রোগী ডাক্তারের কাছে গিয়ে বলল, “ডাক্তার সাবআমার একটা অদ্ভুদ রোগহয়েছে
ডাক্তার বললেন, “কি সমস্য?”
রোগী বলল, “আমি অল্পতেই রেগে যাই। গালাগালি করি
ডাক্তার বলল, “ব্যাপারটা একটু খুলে বলুন তো
রোগী বলল, “হারামজাদাকয়বার খুলে বলব!!!” 

। ক তরুণীর হঠাৎ কঠিন এক রোগ ধরা পড়ল। অনেক পরীক্ষা-নিরীক্ষার পরচিকিৎসকেরা বললেন, ‘আপনি আর বড়জোর ছয় মাস বাঁচবেন
বেচারী বিমর্ষ হয়ে বাড়ি ফিরল। তারপর কী ভেবে আবার সেই চিকিৎসককে ফোন করেবলল, ‘কিন্তু আমি যে আরও অনেক দিন বাঁচতে চাই
চিকিৎসক কিছুক্ষণ চুপ থেকে বললেন, ‘আপনি একটা বিয়ে করুন
আপনি আমার সঙ্গে মশকরা করছেন!
না না,’ চিকিৎসক বললেন, ‘আমার কথা শেষ হয়নি। আপনি একজন অর্থনীতিবিদকে বিয়েকরবেন
কেন?’
তার সঙ্গে থাকলে প্রতিটি দিনই আপনার অনেক বড় মনে হবে। এবং অল্প সময়েইজীবনের ওপর বিরক্তি এসে যাবে

গির্জায় কনফেশন চলছে
ফাদারআমি একটি মুরগি চুরি করেছিলাম। সেটা নিয়ে আপনি আমাকে পাপমুক্ত করবেন?
নাএভাবে হয়নাতুমি যার মুরগি তাকে ফেরত দিয়ে আসো
ফেরত দেওয়ার চেষ্টা করেছিলাম কিন্তু মুরগির মালিক ফেরত নিতে চায় না
সে ক্ষেত্রে তুমি পাপমুক্ত। কারণ তুমি মুরগির মালিককে ফেরত দেওয়ার চেষ্টা করেছিলে
মুরগিচোর খুশিমনে মুরগি নিয়ে বাড়ি চলে গেল। ওদিকে পাদ্রি বাড়ি ফিরে দেখেন তাঁর মুরগিটি নেই

বিচারক : চুরি করার সময় একবারও তোমার স্ত্রী আর মেয়ের কথা মনে হয় নি?
চোর : হয়েছেহুজুর। কিন্তু দোকানটায় শুধু ব্যাটাছেলের কাপড়ই ছিল 

সর্দারজি হাসতে হাসতে তাঁর বন্ধু বান্তা সিংকে বললেন, ‘জানিসআজকে একটা মজার কাণ্ড ঘটেছে। এক চোর আমার মোবাইল ফোনসেটটা চুরি করে নিয়ে গেছে’ বান্তা সিং বললেন, ‘বলিস কীএটা মজার কাণ্ড হয় কী করে!’ সর্দারজি আবারও হাসতে হাসতে বললেন, ‘আরে তুইও তো দেখি ওই চোরের মতোই বেকুব। আমি তো ওই বেকুব চোরকে পালাতে দেখছিলাম আর হাসছিলাম। ওই ব্যাটা চোর তো আর জানে নাআমি মোবাইল ফোনের চার্জার সব সময় লুকিয়েই রাখি

 


Share this post

Repost 0

comments

রঙ্গীলার রঙের দুনিয়া

  • : রঙ্গীলার রঙের দুনিয়া
  • রঙ্গীলার রঙের দুনিয়া
  • : Bangla blog,Bangla Kobita & Golpo.Funny Pictures & Jokes.
  • Contact

Chat Box-চ্যাট বক্স

Search-অনুসন্ধান

Archives-আর্কাইভ

Page-পাতা

Category-ক্যাটাগরি